আরেকটি স্বপ্নভঙ্গ, আরেকটি আক্ষেপ

২০১২ সালের কথা, ঘরের মাঠে শিরোপার একেবারেই কাছাকাছি গিয়েও হতাশ হয়েছিল বাংলাদেশ। মাত্র ২ রানে পাকিস্তানের কাছে হেরে প্রথম কোনো শিরোপা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল বাংলাদেশের। মুশফিক-সাকিবদের সেদিনের কান্না আজও হয়তো ক্রিকেট-প্রেমীরা ভুলে যাননি। ফাইনালে উঠেও আরো একবার শিরোপা জিততে না পারার আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে বাংলাদেশকে। শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফিতে ভারতের কাছে চার উইকেটে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় লাল-সবুজের দলের। আজ রোববার ভারতের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ গড়েছিল ১৬৬ রান। সংগ্রহ অনেক বড় না হলেও বাংলাদেশের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শক্তিশালী ভারতকে রীতিমতো ঘাম ঝরিয়ে ছেড়েছেন রুবেল-মুস্তাফিজরা। ম্যাচের শেষ দিকে বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও শেষ দুই ওভারের নাটকীয়তায় শেষ পর্যন্ত শিরোপার উল্লাস করে রোহিত শর্মারা। শেষ বলে ছক্কা মেরে ভারতকে জয় এনে দেন দিনেশ কার্তিক। মাত্র ৮ বলে ২৯ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস খেলে তিনিই হন দলের জয়ের নায়ক। অথচ এই ম্যাচে বাংলাদেশের দারুণ সম্ভাবনা ছিল জয়ের। শেষ দুই ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ৩৪ রান। যখন বাংলাদেশের ক্রিকেট প্রেমীরা জয়ের উল্লাস করতে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তখনই দিনেশ কার্তিক এসে খেললেন অতিমানবীয় একটি ইনিংস। এর আগেও তিনবার এমন স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে বাংলাদেশের। ফাইনালে উঠেও শিরোপা হাতছাড়া করেছে। ২০১২ সালে এশিয়া কাপের ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে ২ রানে হেরেছে। এর পর ২০১৬ সালে এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টির ফাইনালে ভারতের কাছে ৮ উইকেটে হেরে যায় লাল-সবুজের দল। আর কিছুদিন আগে ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে ৭৯ রানে হারে মাশরাফিরা।




  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত


খেলা ক্যাটাগরির আরও খবর পড়ুন