অতিরিক্ত ঘাম হওয়া যেসব রোগের উপসর্গ

খুব গরম পড়লে অথবা খুব পরিশ্রম করলে ঘাম হওয়াটা স্বাভাবিক। কিন্তু অযথা যদি ঘাম হয় তাহলে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। অনেকেই আছেন যারা ঘামেন বেশি। এমনকি বসে বসেই অনেকেরই হাত ঘেমে যায়, আবার অনেকের পা-ও ঘেমে যায়। আমরা এই ব্যাপারগুলিকে খুব একটা পাত্তা দিই না। কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন, এই অতিরিক্ত ঘাম হওয়া বিভিন্ন রোগের উপসর্গ। আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে অতিরিক্ত ঘাম যে বিশেষ কিছু রোগের উপসর্গ প্রকাশ করে সেই সম্পর্কে জানব ১। রক্তের শর্করার ওঠনামা করা ডায়াবেটিসে খুব স্বাভাবিক। ডায়াবেটিস রোগে স্নায়ুর ক্ষতি হয়। এসব কারণে এই রোগীদের প্রচুর ঘাম হতে পারে। তাই অযথা ঘাম হলে, প্রথমেই রক্তের শর্করা পরীক্ষা করুন। দরকার পড়লে চিকিৎসকের সাহায্য নিন। ২। যখন হার্ট রক্ত পাম্প করতে অসুবিধা বোধ করে, তখন অনেক বেশি চাপ বোধ হয়। এটি অতিরিক্ত ঘামের কারণ হয়। বেশি ঘাম হৃদরোগের একটি লক্ষণ। চিকিৎসকের মতে, বিনা কারণে ঘাম হলে অবশ্যই ডাক্তার দেখান। অনেক সময় হৃদপিন্ডে সমস্যা হলে এরকম হতে পারে। ৩। অনেক সময় অতিরিক্ত উদ্বেগের সময় ঘাম হয়। উদ্বেগ চাপযুক্ত হরমোনকে বাড়িয়ে দেয়। এতে বেশি ঘাম হয়। তাই যারা মানসিক চাপে ভুগছেন, তারা ডাক্তারের পরামর্শ নিন। ৪। মেনোপজের সময় অনেক নারীরই হট ফ্লাস ও ঘামের সমস্যা হয়। বুক ও ঘাড়ে বেশি ঘাম হয়। ৫। রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়লেও ঘাম হয়। তাই রক্ত পরীক্ষা করে তা জেনে নিন। দরকারে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।




  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত


স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ক্যাটাগরির আরও খবর পড়ুন