নাইজেরিয়ানদের ২৮ লাখ ডলারের বিশ্বকাপ

২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপে আর্থিক অসঙ্গতির জেরে ভুগতে হয়েছিল নাইজেরিয়াকে। বোনাস ও অন্যান্য সুবিধার জন্য নাইজেরিয়া ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে বিশ্বকাপ চলাকালীন অনুশীলন বর্জন করেছিল সুপার ঈগলরা।

এবার তাই ঝুঁকি নিতে রাজি হয়নি নাইজেরিয়া ফুটবল ফেডারেশন (এনএফএফ)। রাশিয়া বিশ্বকাপে জন্য এরই মধ্যে অতিরিক্ত আট লাখ ডলারের একটি তহবিল করেছে দেশটি। যাতে বিশ্বকাপ চলাকালীন কোনো সংকট সৃষ্টি না হয়।

রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক দলকে দুই মিলিয়ন ডলার করে দিচ্ছে ফিফা। সেই অর্থের সঙ্গে আরও আট লাখ ডলার যোগ করে বিশ্বকাপের জন্য মোট ২.৮ মিলিয়ন ডলারের তহবিল গঠন করেছে নাইজেরিয়া।

এনএফএফ’র প্রেসিডেন্ট আমাজু মেলভিন পিনিক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত যে, ফিফার বরাদ্দ ছাড়াও অতিরিক্ত ৮ লাখ ডলারের তহবিল গঠন করতে পেরেছি। বিশ্বকাপ ছাড়াও বিশ্বকাপের আগের ম্যাচগুলো নিয়ে আমাদের আর কোনো সমস্যা হবে না।’

বিশ্বকাপের গেল আসরে বোনাস নিয়ে ফুটবলারদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছিল। অসন্তোষ এতটাই তীব্র হয়েছিল যে, সুপার ঈগলরা বোনাসের দাবিতে ট্রেনিং সেশন বয়কট করেছিল। এবার সেরকম কিছু ঘটবে না

বলে আশ্বস্ত করে পিনিক বলেন, ‘আমরা আত্মবিশ্বাসী যে, রাশিয়ায় এবার খেলোয়াড়দের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দেবে না। এর ফলে খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা বিশ্বকাপ নিয়ে মনোযোগী হতে পারবেন।’

গতি ও ক্ষিপ্রতার জন্য বিখ্যাত এ দলটি এবার বড় প্রত্যাশা নিয়েই রাশিয়ায় যাচ্ছে। দলটির বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা দেখছেন, এমনকি আফ্রিকান ফুটবল কিংবদন্তি এবং লাইবেরিয়ার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জর্জ উইয়াহও।

তার বিশ্বাস, নাইজেরিয়ার বিশ্বকাপ জেতার সামর্থ্য রয়েছে।

১৭ জুন ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপের মিশন শুরু করবে নাইজেরিয়া। ২২ জুন আইসল্যান্ড ও ২৭ জুন আর্জেন্টিনার বিপক্ষে গ্র“পপর্বের বাকি দুটি ম্যাচ খেলবে আফ্রিকার দেশ।




  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত


খেলা ক্যাটাগরির আরও খবর পড়ুন