আল কায়দা মানববোমা তৈরী করে সৌদি ভূখণ্ডে

সৌদি আরবে মানব বোমা বানায় দুর্ধর্ষ জঙ্গিগোষ্ঠী আল কায়দা। দেশটির গহিন মরুভূমিতে আত্মঘাতী হামলার বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। মরুভূমির গভীরে আল কায়দার এসব প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ নেয় জঙ্গিগোষ্ঠীটির বহু তরুণ সদস্য। এ ধরনের একটি প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের বেশকিছু ভিডিওচিত্র সৌদি গোয়েন্দা সংস্থা উদ্ধার করেছে। প্রশিক্ষণের সময় জঙ্গিরাই ভিডিওগুলো ধারণ করেছে। ভিডিওচিত্রগুলো নিয়ে ‘পাথ অব ব্লাড’ নামে একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করা হয়েছে। আগামী ১৩ জুলাই ব্রিটেনের সিনেমা হলগুলোতে দেখানো হবে এটা। খবর রয়টার্সের।

প্রামাণ্যচিত্রটি তৈরি করেছেন বাফটা পুরস্কারজয়ী সিনেমা নির্মাতা জোনাথান হ্যাকার। ভিডিও চিত্রগুলোর কয়েকটি দেখা যাচ্ছে, আত্মঘাতী হামলার নানা কলাকৌশল রপ্ত করছে জঙ্গি সদস্যরা। কৌশলগুলোর মধ্যে ‘হুইলব্যারো দৌড়’ বা চার হাত-পা ব্যবহার করে দৌড় প্রশিক্ষণ রয়েছে। প্রামাণ্যচিত্রটি প্রযোজনা ও আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতা করছে ট্রিনিটি ফিল্ম। প্রামাণ্যচিত্রটির ব্যাপারে ট্রিনিটি ফিল্ম কর্মকর্তা বলেন, ‘মুসলিম সন্ত্রাসীরা কীভাবে মুসলিম বেসামরিক নাগরিকদের টার্গেট করে এই প্রামাণ্যচিত্রে সেটাই দেখানো হয়েছে।’ এছাড়া আল কায়দা কীভাবে মানুষকে জঙ্গি দলে ভেড়ায় এবং আত্মঘাতী মিশনে পাঠানোর আগ পর্যন্ত কীভাবে তাদের মগজ ধোলাই করে তা বিস্তারিত দেখানো হয়েছে প্রামাণ্যচিত্রটিতে। আল কায়দার সদস্যরা কীভাবে রাজধানী রিয়াদের একটি গাড়ি পার্কিংয়ে হামলার ছক কষে তাও দেখানো হয়েছে উদ্ধার করা ভিডিওগুলোতে। আল কায়দার প্রতিষ্ঠাতা সৌদি নাগরিক ওসামা বিন লাদেন ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ারে হামলা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০০৩ সাল থেকে সৌদি আরবে আত্মঘাতী হামলার প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে আল কায়দা।




  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত


আন্তর্জাতিক ক্যাটাগরির আরও খবর পড়ুন